শার্শার বাগআঁচড়ায় মা-বাবার উপর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা

মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বিশেষ প্রতিনিধ

যশোরের শার্শায় মোবাইল ফোন কিনে না দেওয়ায় বাবা মায়ের উপর অভিমান করে নিশিতা ইসলাম(১৩)নামে ৯ম শ্রেণির এক ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

রোজ মঙ্গলবার (৩০এপ্রিল) সকাল ১০ টার দিকে নিজ ঘরের সিলিং ফ্যান থেকে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

মৃত্যু নিশিতা গোপালগঞ্জ জেলার সদর থানার ৪নং ওয়ার্ড চন্দ্রদিঘলীয়া গ্রামের আবু আনসারের মেয়ে। আবু আনসার চাকরি সুবাদে বর্তমান শার্শার বাগআঁচড়ার মাহাবুব আলম এর বাড়ির ভাড়াটিয়া।

স্থানীয়সুত্রে পুলিশ জানায়,মেয়েটি বাগআঁচড়া ইউনাইটেড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেণীতে পড়াশোনা করতো।গত কয়েকদিন যাবত সে তার পিতা মাতার কাছে একটি স্মার্ট ফোন কেনার বাইনা ধরে।এ দিন সকালে মোবাইল ফোন কিনে না দেওয়ায় তার মায়ের সাথে সে অভিমান করে ঘরে চলে যায়।পরে অনেক সময় ঘর থেকে বের না হওয়ায় তার মায়ের সন্দেহ হয়।পরে অনেক ডাকাডাকি করে কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙ্গে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) শেখ মনিরুজ্জামান জানান,এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে এবং পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় পোস্ট-মর্টেম ছাড়ায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে

Leave a Reply