রাজশাহী বাঘায় রেজিস্ট্রি অফিসের দখল নেওয়া কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ১০

আবুল হাশেম
স্টাফ রিপোর্টারঃ

রাজশাহীর বাঘা রেজিস্ট্রি অফিসের দখল নেওয়া কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০ জন বলে জানা যায়। সোমবার(১০ জুন) সকাল সারে ১১ টার সময় বাঘা উপজেলা চত্তরে  অবস্থিত রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ দখল নেওয়াকে কেন্দ্র করে দলিল লেখক সমিতির সদস্যদের মাঝে ধাওয়া ও পাল্টা ধাওয়া, ইট পাটকেল নিক্ষেপ এর ঘটনা ঘটে। এ সময় বাঘা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে  প্রায় ১ ঘন্টা ব্যপি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। উল্লেখ্য ধাওয়া- পাল্টা ধাওয়ায় উভয়পক্ষের ১০জন আহাত হয়েছে বলে জানা যায়। 

স্থানীয় সূত্র, মাইনুল ইসলাম মুক্তা ও সানোয়ার হোসেন সুরুজ উভয় সাবেক বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ( বাঘা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লায়েব উদ্দিন লাভলু ও পৌর মেয়র আক্কাস আলী এর অনুসারী) এর নেতৃত্বে বাঘা উপজেলা দলিল লেখক সমিতির কিছু সদস্য ও বৈহিরাগতদের নিয়ে বাঘা উপজেলার রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখক সমিতির  নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার জন্য প্রবেশ করে। এ সময় রেজিস্ট্রি অফিসের সদ্য সভাপতি শাহিনুর রহমান পিন্টু ও সাধারণ সম্পাদক নয়ন সরকার  কমিটি গঠন করা হয়।তাদের সমর্থকেরা সকলেই(সংসদ সদস্য মোঃ শাহরিয়ার আলম, এমপি অনুসারী) এর নেতৃত্বে দলিল লেখক সমিতির সদস্য ও কিছু বহিরাগত ব্যক্তিবর্গ বাধা প্রদান করলে উভয় পক্ষের মাঝে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এ সময় বাঘা থানা পুলিশ ঘটনার স্থলে উপস্থিত হয়ে লাঠিচার্জ ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। 

তথ্যমতে,দলিল লেখক সমিতির সভাপতি আনোয়ার হোসেন মিলটন ও  নয়ন সরকার সাধারণ  সম্পাদক  দীর্ঘদিন যাবত উক্ত পদে রয়েছেন। উপজেলা পরিষদ নির্বাচন পূর্ববর্তী সময়ে এমপি মহোদয়গত ৯/৬/২৪ ইং রবিবার  শাহিনুল রহমান  পিন্টুকে  সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নয়ন সরকার কে মৌন সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন বলে জানা যায়।  অপরপক্ষে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব লায়েব  উদ্দীন লাভলু গ্রুপের পক্ষ হতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হওয়ার জন্য তোর জন্য গ্রুপিং শুরু করেন। 

এলাকায় বর্তমানে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।পুলিশ অত্র এলাকায় সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন।

সদ্য সমাপ্ত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে শাহিনুল ইসলাম পিন্টু মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছিলেন। পরবর্তীতে তিনি শারীরিক অসুস্থতা জনিত কারণ দেখিয়ে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন। সংসদ সদস্য কর্তৃক দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদ প্রতিশ্রুতির ভিত্তিতে তিনি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছিলেন বলে জানা যায়।

Leave a Reply