বাঘায় দক্ষতা উন্নয়ন ও কর্মসংস্থানে জনসংযোগ সংক্রান্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত

আবুল হাশেম, রাজশাহী ব্যুরো

রাজশাহীর বাঘায় জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপজেলা পর্যায়ে “দক্ষতা উন্নয়ন ও কর্মসংস্থানে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর সাথে জনসংযোগ সংক্রান্ত সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) সকাল ১০ ঘটিকায় উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে উপজেলা প্রশাসন ও জেলা কর্মসংস্থান এবং জনশক্তি অফিসের আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা ইমরান হোসেনের সঞ্চালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস রাজশাহী’র সহকারী পরিচালক আখলাক -উজ-জামান।

কর্মসংস্থানের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশে মিনিমাম সাড়ে তিন কোটি মানুষ বেকার, তাহলে সে দেশে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, সামাজিক শৃঙ্খলা, পারিবারিক শৃঙ্খলা, সম্প্রীতি, ধর্মীয় সম্প্রীতি তাহলে এগুলো কি ভাবে বজায় রাখা সম্ভব। আচ্ছা আপনারা কেউ বলবেন এই ব্যর্থতার দায় সরকারের। না এই ব্যর্থতা সরকারের নয়, এই ব্যর্থতা আমাদের সকলের। কারন আমরা নিজেদেরকে দক্ষ কর্মী হিসেবে তৈরি করতে পারি না। শুধুমাত্র আমরা পড়াশুনা এবং চাকরির পেছনে ছুটি। দেশের সকলেই তো চাকরি দেওয়া সম্ভব নয়। সুতরাং চাকরির পিছনে না ছুটে আমরা নিজেদেরকে নিজেরা বিভিন্ন কাজে দক্ষ হিসেবে তৈরি করে তুলি। তাহলেই এদেশে বেকারত্ব দূর হবে। এবং সমাজে যত সমস্যা রয়েছে সব সমাধান হয়ে পারে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরিকুল ইসলাম বলেন, একজন প্রবাসীর পাঠানো অর্থ শুধু তার পরিবারের উন্নয়ন করে শুধুমাত্র তা নয়, বাংলাদেশের অর্থনীতিক আয়ের অন্যতম উৎস বৈদেশিক রেমিট্যান্স । এই জন্যই বিদেশ গমনের ক্ষেত্রে সঠিক সিদ্ধান্ত ও দক্ষতা অর্জনে করেই কেবল বিদেশ যাওয়া উচিত। বিদেশ গমনের ক্ষেত্রে অনেকেই প্রতারনার শিকার হয়, যারা নিয়মঅনুযায়ী না গিয়ে অবৈধ পন্থায় দালালদের মাধ্যমে বিদেশে যেতে চায় তারাই বেশিরভাগ প্রতারণার শিকার হন। এক্ষেত্রে তারা পারিবারিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন পাশাপাশি সরকারকেও ক্ষতিগ্রস্ত করে। তাই বিদেশে যেতে চাইলে অবশ্যই বৈধ পন্থায় সরকার কর্তৃক নিবন্ধিত এজেন্সির মাধ্যমে যেতে হবে। আপনাদের পরিচিত আত্মীয় স্বজন যারা বিদেশ যেতে আগ্রহী তারা যেন অব্যশই সরকারে সরকার বিভিন্ন সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান হতে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে যেন বিদেশে যায়।

এই সময় সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন,বাঘা উপজেলা পুঁজা উদযাপন কমিটির সভাপতি সুজিত কুমার পান্ডে বাকু, সাধারণ সম্পাদক অপূর্ব কুমার সাহা, রহমতুল্লাহ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবুল ইসলাম, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের ব্যাক্তিবর্গ, গণমাধ্যমকর্মী, বিদেশ ফেরতকর্মী, এনজিও প্রতিনিধি, শিক্ষক, ইমাম, পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোকজন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, দেশে ২০২৩–২৪ অর্থবছরের প্রথম ১১ মাসে ২ হাজার ১৩৭ কোটি ডলারের প্রবাসী আয় এসেছে, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের ১ হাজার ৯৪১ কোটি ডলারের চেয়ে ১৯৬ কোটি ডলার, যা ১০ শতাংশ বেশি। সেই বার পুরো অর্থবছরে এসেছিল ২ হাজার ১৬১ কোটি ডলার। এক মাস বাকি থাকতেই আগের অর্থবছরের প্রায় সমান প্রবাসী আয় এসেছে এবার। গত এপ্রিলে প্রবাসীরা ব্যাংকিং চ্যানেলে ২০৪ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন, যা আগের বছরের একই মাসে ছিল ১৬৯ কোটি ডলার। সাধারণত প্রতিবছর ঈদের আগে প্রবাসী আয় বেড়ে থাকে।

Leave a Reply