গাইবান্ধা গোবিন্দগঞ্জে ঘুষবাণিজ্যের মধ্যে অন্যায় ভাবে খাদ্যবান্ধব ( ফ্রাইপ্রাইজ) ডিলারদের গোপনে বাদ দেওয়ার চেষ্টা চলছে। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা


স্টাফ রিপোর্টারঃ

গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি/ফ্রাইপ্রাইজের ডিলারদের অন্যায় ভাবে বাদ দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছে বলে গুঞ্জন উঠেছে।
বর্তমান সরকারের একটি মহৎ উদ্দেশ্যে এবং নির্বাচনী ইশতেহারের অংশ হিসেবে বাস্তবায়ন করা হয়। এই কর্মসূচি সফলভাবে বাস্তবায়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছে ডিলারগণ। তারা মাঠ পর্যায়ে স্বল্প লাভে তথা সরকারের বেঁধে দেওয়া নিয়মে সঠিকভাবে কাজ করছেন। ইতিমধ্যেই ডিলারদের কে চাপ দিচ্ছে লাইসেন্স নবায়ন না করার জন্য ও পদত্যাগ করার জন্য। এই অবস্থায় তারা হতাশায় ভুগছেন।
খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি এর সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং সদস্য সচিব উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক। প্রধান উপদেষ্টা মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য এবং উপদেষ্টা উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয়।

গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গোবিন্দগঞ্জ এবং উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক গোবিন্দগঞ্জ কে একটি প্রভাবশালী মহল খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি এর ডিলারদের লাইসেন্স নবায়ন না করার জন্য এবং বিলম্বিত করার জন্য চাপ দিচ্ছে।
যাতে করে ডিলারদের লাইসেন্স নবায়ন
তামাদি হয়।


লাইসেন্স নবায়ন না হলে ডিলারদের কে বাদ দেওয়া সহজ হবে। এ ব্যাপারে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আব্দুস সোবানকে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন আমি কিছু বলতে পারব না, তবে খুব চাপে আছি। উপজেলার কর্মরত ডিলারদের মধ্যে প্রায় দুই ডজন ডিলার প্রতিদিনই উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তার কার্যালয়ে ধরনা দিচ্ছে কিন্তু একটি মহলের চাপে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আব্দুস সোবহান খাদ্য বন্ধক কর্মসূচির ডিলারদের লাইসেন্স নবায়নের ফাইল জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ে পাঠাতে তালবাহনা করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ডিলারদের লাইসেন্স নবায়ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন ভুক্তভোগীগণ।

Leave a Reply